আসছে উইন্ডিজ সিরিজেই কি বিদায় বলবেন মাশরাফী?

0
182

আগামী জানুয়ারি তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের টাইগার শিবিরে কি রাখা হবে মাশরাফীকে? সাম্প্রতিক পারফর্মেন্স বিবেচনায় ফর্মে থাকা ম্যাশকে রাখার পক্ষে যেমন মত এর পাশাপাশি তরুণদের সুযোগ দেয়াটাকেও জরুরী মনে করেন সাধারণ দর্শকদের অনেকেই। আবার এই সিরিজ দিয়ে নড়াইল এক্সপ্রেসকে আনুষ্ঠানিক বিদায় ও দিতে পারে বিসিবি, এমন কানাঘুষাও আছে। তবে মাশরাফির খেলা বা অবসরের সিদ্ধান্ত একান্তই তার ব্যাক্তিগত বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ড এর পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন।

আসছে উইন্ডিজ সিরিজেই কি বিদায় বলবেন মাশরাফী?

আগামী ২০ জানুয়ারি ১১ মাসের স্থবিরতায় ফিরতে যাচ্ছে গতি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট । ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটায় ২০ জানুয়ারি মুখোমুখি হবে টাইগাররা। অনেক লম্বা সময় পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু হওয়ায় অনেকটা নতুন করেই সব শুরুর মতো উত্তেজনা। এখন দেখার বিষয় প্রথম সুযোগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে যাওয়া সৌভাগ্যবান ক্রিকেটার কারা?

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে অনেকের ব্যাট তো নজর কেড়েছেই, তবে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো পেস বিভাগের জন্য দারুণ কয়েকটা মুখ নজর কেড়েছে সবার। শরিফুল, হাসান মাহমুদ-শহীদুলরা অপশন বাড়িয়েছে নির্বাচকদের সামনে।
আর টুর্নামেন্ট সেরা মুস্তাফিজ তো থাকছেই ।
তবে পড়ন্ত বেলাতেও দূর্বার নড়াইল এক্সপ্রেস। অধিনায়কত্ব ছাড়লেও বিদায় জানাননি লাল-সবুজের জার্সি। তবে অনেকের ধারণা উইন্ডিজ সিরিজে রাখা হলেও, তা কেবল বিদায় দিতেই রাখতে পারে বিসিবি। এমন ভাবনাকে স্রেফ বোকামিই মনে করেন বিসিবি পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন।

এ বিষয়ে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন ” একটা প্লেয়ার নিজে ডিসিশান নিবে যে, সে খেলবে নাকি রিটায়ার করবে। এটা মাশরাফীর ডিসিশান। আমার মনে হয় না এটা আমাদের ঠিক করে দেয়া উচিত। যদি মাশরাফী মনে করে যে এই সিরিজে সে রিটায়ার করবে সেটা তার ব্যাপার। এটা আমাদের বলাটা একদম বোকামী হবে।”

উল্লেখ্য যে , ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরকে সামনে রেখে টাইগার স্কোয়াড ঘোষণা করা হবে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে।

ক্রিকেটের আরো খবর পেতে আমাদের সাথেই থাকুন!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here