ফুটবলভক্তদের প্রতীক্ষার অবসান – আজ রাতে অবশেষে ন্যু ক্যাম্পে(Camp Nou) চ্যাম্পিয়ন্স লিগ(UCL) ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন মেসি-রোনালদো(Messi-Ronaldo)

0
222
ফুটবলভক্তদের প্রতীক্ষার অবসান - আজ রাতে অবশেষে ন্যু ক্যাম্পে(Camp Nou) চ্যাম্পিয়ন্স লিগ(UCL) ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন মেসি-রোনালদো(Messi-Ronaldo)

প্রায় আড়াই বছর পর অবশেষে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন সময়ের দুই সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসি ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। আজ রাত ২ টায় বার্সেলোনার ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনা ও জুভেন্টাসের ম্যাচে মুখোমুখি হবেন তারা দুজন। দুদল ইতিমধ্যেই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ২০২০-২১ সিজনের নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে। এটা তাই শুধু গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই। গেল অক্টোবরেই অবশ্য দুজনের মুখোমুখি হবার কথা ছিল। তুরিনে তখন আতিথেয়তা পেয়েছিল বার্সা ও মেসি। তবেঁ, করোনা পজিটিভ হওয়ার কারণে আর সেবার ক্যাতালান ক্লাবটির বিপক্ষে মাঠে নামা হয়নি রোনালদোর। তবেঁ, এবার আর সেরকম কিছু নেই। তাই, তাবৎ ফুটবলপ্রেমীরা একটি জমজমাট ধ্রুপদী লড়াই দেখার আশা করতেই পারে।

ফুটবলভক্তদের প্রতীক্ষার অবসান – আজ রাতে অবশেষে ন্যু ক্যাম্পে(Camp Nou) চ্যাম্পিয়ন্স লিগ(UCL) ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন মেসি-রোনালদো(Messi-Ronaldo)

রোনালদো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেঁড়ে ২০০৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি জমানোর পর থেকে ২০০৯-২০১৮ প্রায় ১ দশক নিয়মিত মুখোমুখি হয়েছেন মেসির বিপক্ষে। তবেঁ, ২০১৮ এর ট্রান্সফার মার্কেটে রিয়াল ছেঁড়ে জুভেন্টাসে যোগ দিলে আর দেখা হয়নি তাঁদের। তাঁদের শেষ দেখা হয় ২০১৮ সালের ৬মে। ওইদিন রিয়াল-বার্সা একে অপরের মুখোমুখি হয় এল-ক্লাসিকোতে বার্সার মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে। খেলাটি ২-২ গোলে ড্র হয় আর দুজনই একটি করে গোল করেন সেই ম্যাচে।

এইবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সা ও জুভেন্টাস একই গ্রুপে পড়ে। যার কারণে, দুই মহারথীর মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়। প্রথম লেগ রোনালদো মিস করলেও দ্বিতীয় লেগে ফিরে আসছেন তিনি।

অনেকদিন পর মুখোমুখি দুই মহারথী

এপর্জন্ত, মেসি ও রোনালদো মোট ৩৫বার মুখোমুখি হন। এতে মেসির জয় ১৬বার আর রোনালদোর জয় ১০বার। মেসি গোল করেছেন ২২টি আর রোনালদো ১৯টি। আবার সুযোগ তৈরি হল একে অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার। বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যানের কথাতেই সেটি স্পষ্ট –

মেসি-রোনালদোর মতো দুই গ্রেট চ্যাম্পিয়নকে কাল (আজ) দেখতে পারাটা হবে দুর্দান্ত। ওরা গত ১৫ বছর ধরে বিশ্বসেরা। দুজনে ভিন্ন ধরনের খেলোয়াড়, কিন্তু গোলের জন্য, শিরোপার জন্য ওদের লড়াইটা একই। আমি দুজনেরই প্রশংসা করি, কারণ তারা অবিশ্বাস্য। কে সেরা প্রশ্ন সেটা না। আমরা দুজনের খেলাই উপভোগ করব।

তবেঁ, আসলে ম্যাচটি অনেকটাই গুরুত্তহীন। শুধু দুই মহাতারকার পুনর্মিলনীর কারণেই ম্যাচটিকে গুরুত্তের সাথে দেখা হচ্ছে। কিন্তু, ম্যাচটির আগে বার্সা আছে বেশ ব্যাকফুটে অবস্থানে। সদ্যই তারা হেরে বসেছে কাদিজের মত নতুন দলের কাছে ঘরোয়া লিগে। অন্যদিকে, পুরো স্কোয়াড ইনজুরি জর্জরিত। এর মধ্যে মেসির ফর্মের অবস্থা একদম যাচ্ছেতাই। তার খেলা দেখে বোঝা যাচ্ছে, বার্সা থেকে মন উঠে গেছে তার।

অপরদিকে, রোনালদো করোনা জয় করে এসে ফিরেছেন নিজের সেরা ছন্দে। ডায়নামো কিয়েভের বিরুদ্ধে ৭৫০ গোলের (ক্লাব ও দেশ মিলিয়ে) মাইলফলক ছুঁয়েছেন পর্তুগিজ যুবরাজ। লিগেও ভাল খেলছে জুভেন্তাস। প্রথম লেগে হেরে গেলেও তাই এই ম্যাচে বার্সার মাঠে বার্সাকে হারানোর আশা করতেই পারে তারা। এখন, আজরাতের খেলাই সব প্রশ্নের উত্তর দেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here